মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

হোয়ানক ইউনিয়নের ইতিহাস

 

প্রায় ১৮০০ খ্রীঃ এর দিকে তৎকালীন রাখাইন (মগ) সম্প্রদায় মহেশখালীতে আর্বিভূত হয়। বিশেষ করে তাদের আগমন ঘটে চীন দেশ থেকে। হোয়া মগ নামক একজন তৎকালীন রাখাইন (মগ) বসবাস এবং চাষাবাদের আশায় পাহাড়ে স্থান নেয়। পরষ্পর আরও রাখাইন আসতে থাকেন। তার নাম অনুসারে হোয়ানক নামকরণ হয়। এরপর উখিয়া, কুতুবদিয়া, সাতকানিয়া এবং বাঁশখালী হইতে মুসলমানগন ক্রমান্বয়ে আসতে থাকেন। ১৮০০ খ্রীঃ এর শেষের দিকে জায়গা-জমি বিক্রি ও ভৌতপূর্ব জমিদার হইতে বন্ধোবস্তি নেওয়ার কাগজ-পত্র সৃজিত হয়।

অনেকের প্রাচীন ধারণামতে, মহেশখালী উপজেলায় রাখাইন অধ্যুষিত জনপদ ছিল হোয়ানক। ধারণা করা হচ্ছে, রাখাইনদের ভাষার আদলে রাখাইন ভাষা থেকে হোয়ানক নামের উৎপত্তি। প্রচলিত আছে কারো-কারো মতে, মহেশখালীর উত্তর এবং দক্ষিণ পাশের আয়তন নির্ণয় করে এই জনপদ মহেশখালীর মধ্যখানে অবস্থান করায় নামকরণ হয় হোয়ানক। আঞ্চলিক ভাষা ‘হোয়ান’ অর্থ ‌‍‌‘সমান'। অর্থাৎ অত্র ইউনিয়ন মহেশখালী উপজেলার ঠিক মধ্যখানে অবস্থানের কারণে হোয়ানক নামকরণ করা হয়।


Share with :

Facebook Twitter